দি গ্রেট ইসলামিক এনসাইক্লোপেডিয়ার ৫ম খ- প্রকাশিত

16_Islamic Encyclopedia (7)রিবাতুল ইসলাম : দি গ্রেট ইসলামিক এনসাইক্লোপেডিয়ার পঞ্চম খ- প্রকাশিত হয়েছে। ইংরেজিতে প্রকাশিত এ এনসাইক্লোপেডিয়া ইসলামিকা নামে নামকরণ করা হয়েছে। এর আগের খ-গুলো একই নামে পরিচিতি পেয়েছে। নেদারল্যান্ডের লিডেনে ব্রিল একাডেমি এনসাইক্লোপেডিয়াটি প্রকাশ করেছে।

ফারসি ভাষায় ইরানে এ এনসাইক্লোপেডিয়াটি ২১ খ-ে প্রকাশিত হয়েছে যা ইংরেজিতে প্রকাশের কাজ শুরু হয় ২০০৮ সালে। ইংরেজিতে ১৬ খ-ে প্রকাশিত হবে এটি। প্রকল্পের কাজ শেষ হবে ২০২৩ সালে। উইলফ্রাড মেডলাং ও ফরহাদ দাফতারি ইংরেজিতে প্রকাশিত এনসাইক্লোপেডিয়ার প্রধান সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। এদেও মধ্যে উইলফ্রাড মেডলাং অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির আরবি বিভাগের অধ্যাপক। তার বয়স ৮৫ এবং ১৯৭৮ সাল থেকে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত তিনি অক্সফোর্ডে অধ্যাপনা করেছেন। ইসলামের ওপর তার রয়েছে অগাধ পা-িত্য ও প্রাক ইসলামের ওপর অনেক বই তিনি লিখেছেন। এছাড়া আরবি ও ইসলামি স্টাডিজের ওপরও তার রয়েছে অনেক গবেষণামূলক প্রবন্ধ।

ফরহাদ দাফতারির বয়স সাতাত্তর এবং তিনি লন্ডনের ইনস্টিটিউট অব ইসমাইলি স্টাডিজের পরিচালক। এনসাইক্লোপেডিয়া ইরানিকার তিনি ছিলেন পরামর্শ সম্পাদক।

দি গ্রেট ইসলামিক এনসাইক্লোপেডিয়া ইতিমধ্যে আরবি ভাষায় ২১ খ-ে প্রকাশিত হয়েছে। ইসলাম ও সমসাময়িক মুসলিম বিশ্ব সম্পর্কে এ এনসাইক্লোপেডিয়ায় বিভিন্ন তথ্য ছাড়াও ইসলামি সংস্কৃতির বিস্তারিত পরিচিতি রয়েছে। ইরানে ১৯৮৩ সালে ফারসি ভাষায় এনসাইক্লোপেডিয়াটি প্রকাশের উদ্যোগ নেয়া হয়। এটি পশ্চিমা দেশগুলোর জ্ঞানপিপাসুদের জন্যে ইসলাম সম্পর্কে জানার এক মহাসুযোগ সৃষ্টি করেছে। ফিনান্সিয়াল ট্রিবিউন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *