যেভাবে পর্ণগ্রাফি আপনার ক্ষতি করে

 

01_18192809_b65ff4_2697629a

এমা জয় : পর্ণগ্রাফি হচ্ছে ঘাতক। আপনি যদি পর্ণগ্রাফি বিক্ষিপ্তভাবে দেখেন বা প্রতিদিন দেখেন কিংবা কিছুটা সময় দেখেন বা শুধুমাত্র ইচ্ছা পূরণের জন্যে দেখেন তার মানেই হচ্ছে এটি আপনার মনকে সবধরনের ভাল চিন্তা ও কাজের সুপ্ত ইচ্ছা থেকে দূরে সরিয়ে নিয়ে যায়। আমরা অনেক সময় বোধের দিক থেকে অন্ধ হয়ে যাই। বাস্তবতা উপলব্ধি করতে পারি না। এর কারণ হচ্ছে বেশিরভাগ সময়ে আমরা তাৎক্ষণিকভাবে পর্ণগ্রাফি যে কতটা মারাত্মক ফলাফল নিয়ে আসে আমাদের জীবনে তা বুঝে উঠতে পারি না। কিংবা বুঝে ওঠার আগেই এধরনের আচ্ছন্নতা আমাদের এক ভয়ঙ্কর মনস্তাত্তিক ক্ষতির জগতে নিয়ে যায়। তুচ্ছ মনে করে নেহাৎ খেয়ালের বশবর্তী হয়ে আমাদের এধরনের পর্ণের প্রতি আসক্তি কিভাবে ধীরে ধীরে আমাদের চরম পরিণতির দিকে নিয়ে যায় আপাতদৃষ্টিতে তা বুঝে ওঠা সম্ভব হয়ে ওঠে না। একটা ঘোরের মধ্যে নিষিদ্ধ জিনিষের প্রতি তীব্র আকর্ষণের মধ্যে আপনি আপনার নিজের অজান্তেই পরিবর্তনে কিভাবে গা ভাসিয়ে চলেন তা বুঝতেই পারেন না। পর্ণগ্রাফি বা স্বমৈথুনের আগ পর্যন্ত আপনি ছিলেন এক ধরনের মানুষ। খোদার প্রতি আপনার দায়বোধ ও সম্পর্ক ছিল এক পবিত্রতম অনুভূতির মধ্যে। আপনি ছিলেন সৃষ্টিশীল এক আনন্দময় জগতের মানুষ।  খোদার সাথে আপনি চাইছেন এবং তার জন্যে আপনার বেঁচে থাকার মধ্যে পূর্ণ আলোকিত এক জীবনে আপনি ছিলেন। সেখান থেকে বোধ হারিয়ে আপনার কিভাবে স্খলন হল, যা আপনি টের পেয়েও যেন পাচ্ছেন না। কিন্তু আপনার সঙ্গে আপনার খোদার সম্পর্ক জন্মগতভাবেই এবং তা আপনার শৈশব থেকে ক্রমশ পরিপক্ক হয়ে ওঠে। পাপবোধ জন্ম নেয় সেখান থেকেই। তখনো আপনি হয়তে পাপের পঙ্কিলতার বিভিন্ন পথের সন্ধানই পাননি। কিন্তু পর্ণগ্রাফি সেই সব পঙ্কিলতার পথে নিয়ে যাওয়ার জন্যে একটি যা আপনাকে ভাল কাজে থাকার ইচ্ছাকে দমন করার জন্যে যথেষ্ট শক্তি রাখে। অভিজ্ঞতা থেকেই বলছি এবং আপনাদেরকে সাবধান করে দিচ্ছি যে পর্ণ এবং অনৈতিক যৌনতা আপনার জীবনকে কিভাবে ধংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যায় যে আপনি তা বুঝেও উঠতে পারেন না।

প্রথমত এটা আপনার খোদার প্রতি আপনার চাওয়া পাওয়ার ইচ্ছাকে এবং তাকে জানার আরো ইচ্ছাকে বিনষ্ট করে। আপনি ধর্মগ্রন্থ পড়ার প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন। প্রার্থনায় আপনার মন বসে না বা একঘেয়েমি আসে। ধর্মশালায় যাওয়া আপনার কাছে ঝামেলা মনে হয়। আপনি আপনার বুঝে ওঠার ক্ষমতা হারাতে থাকেন। মূল্যবোধকে ফিরে পাবার শক্তি আপনি হারাতে থাকেন। এবং আপনি যে ধর্মের অনুসারী হন না কেন আপনি আসলে সেই ধর্মের একজন অবমাননাকারী হিসেবে নিজেকে সংগোপনে তৈরি করতে থাকেন।

ক্রমাগতভাবে আপনি যখন পর্ণগ্রাফিতে আসক্ত হয়ে পড়েন তখন অনেকের কাছ থেকে আপনি বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন। আপনাকে আপনার ব্যক্তিগত ও সামাজিকভাবে সুচিন্তা ও এধরনের কাজ থেকে পর্ণগ্রাফি বিরত রাখে। অন্যের সঙ্গে স্বচ্ছ সম্পর্কে আপনার ভাটা পড়তে শুরু করে। আপনি নিজেকে অন্যের কাছ থেকে একধরনের অস্বচ্ছ বা লুকিয়ে রাখার বাসনা পোষণ করতে শুরু করেন।

দ্বিতীয়ত পর্ণ দেখার ইচ্ছা যত জোরদার হয় তা আপনার ভাল সখগুলোকে অবদমিত করতে শুরু করে। আপনি আপনার সখের কাজ থেকে দূরে আরো দূরে সরে যেতে থাকেন। কারণ পর্ণের এক বিশাল অশ্লীল ফ্যান্টাসি জগতে আপনি প্রবেশ করার পর ইন্টারনেটে একা সময় কাটাতে ভালবাসতে শিখছেন এবং অন্যকে সময় দেয়া ও নেয়া থেকে আপনি বিরত থাকতে শুরু করেছেন। এভাবে আপনি নিজেই পর্ণ দেখার মধ্যে এক ধরনের প্রবল ইচ্ছার পরিতৃপ্তি খুঁজতে শুরু করেন। একা এবং সময় দুই আপনার ঘাতক হয়ে দাঁড়াতে শুরু করে।

আপনার   খোদা আপনাকে কিছু দায়িত্বশীল ভূমিকা গ্রহণ করার জন্যে দুনিয়ায় পাঠিয়েছেন। এবং আপনার  খোদার প্রতি যে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব রয়েছে তা আপনি ভুলতে বসেন। আপনাকে একধরনের অলসতা গ্রাস করে। দায়িত্ব থেকে দূরে সংগোপনে এক ভিন্ন জগতে লুকিয়ে থাকতে এবং নিজেকে সরিয়ে রাখতে আপনি অভ্যস্ত হয়ে ওঠেন। আপনার মনে ভীষণ ধরনের এক স্বার্থপরতা ও আত্মসংকীর্ণতা বাসা বাঁধে। যা আপনার বিবাহিত জীবন বা বন্ধুর সঙ্গে চমৎকার সম্পর্ক এমনকি পরিবারের আপনার সুস্থির গ্রহণযোগ্যতাকে বিচ্ছিন্ন করতে করতে এক পর্যায়ে বিনষ্ট করে ফেলে।

যেহেতু পর্ণগ্রাফি স্বতস্ফূর্ত কোনো বিষয় নয় তাই এধরনের আসক্তি থেকে আপনি সবার কাছ থেকে লুকিয়ে রাখতে পছন্দ করেন। এধরনের লুকিয়ে রাখা আপনাকে খিটখিটে, বদরাগী করে তোলে এবং আপনার কোনো কাজে যখন মন বসানোর কথা তা থেকে দূরে সরিয়ে নিয়ে যায় একধরনের ধোঁকা তৈরির মাধ্যমে।

আপনার অজান্তে পর্ণগ্রাফি আপনার অর্থ ও সময় দুই নষ্ট করে। আপনার মনে এক ধরনের ঘৃণার উদ্রেক করে। এক ধরনের নিরাপত্তাহীনতার জন্ম দেয়। যে যৌনতা শ্বাশত এবং পবিত্রতার মূর্ত প্রতীক যা আপনার জীবনকে সুখে ও আনন্দে ভরিয়ে দেয়ার কথা ছিল তা থেকে পর্ণগ্রাফি আপনাকে অতৃপ্ত আকাঙ্খায় নিয়ে যায়। আপনি আরো আরো নগ্নতার পঙ্কিলতায় নিমজ্জিত হতে থাকেন। যৌনতা নিয়ে আপনার স্বাভাবিক মনে ঘাটতি তৈরি হয় যা আপনাকে অনিয়ন্ত্রিত করে তোলে। এক উদাম কল্পনায় আপনি ভাসতে ভাসতে খেই হারিয়ে ফেলেন।

আপনার বিবাহিত জীবনে এক আনন্দঘন মূহুর্ত যৌনতা। একে বিশ্বাস ও মর্যাদায় পরিপূর্ণ করে রাখার দায়িত্ব আপনার। পর্ণগ্রাফি সেই দায়িত্বে এক ধরনের শিথিলতা তৈরি করে। আপনার অগোচরে আপানি অন্যের প্রতি আসক্ত ও যৌনতায় সম্পর্ক গড়তে যেতে পারেন। এবং এভাবে আপনি অবিশ্বাস্য এক ভয়ঙ্কর পথে পা বাড়ান। কার্যত ব্যভিচার থেকে আপনি দু:খজনকভাবে আর ফিরে আসার পথ পান না। এভাবে আপনি আপনার বিবাহিত জীবনকে বিপথে নিয়ে যেতে পারেন। আপনার জীবন সঙ্গীর কাছে অবিশ্বস্ত হয়ে উঠতে পারেন। আপনার পরিবারকে অস্থিতিশীল বা ভঙ্গুর করে তুলতে পারেন। সন্তানদের কাছ থেকে নিগ্রহ আপনার জন্যে অপেক্ষা করতে থাকে।

পর্ণগ্রাফি খারাপ বলেই এতে আপনি আসক্ত হয়ে অন্যের প্রতি অন্যায়ভাবে কুদৃষ্টি দিতে শুরু করেন। এমন কিছু আপনার দ্বারা স্বপ্নেও করা সম্ভব ছিল না যা আপনি করে বসেন। আপনি ধর্ষণ বা বলাৎকার করতে অভ্যস্ত হয়ে উঠতে পারেন। সুযোগ খুঁজতে থাকেন এবং আপনার বিপরীত লিঙ্গের কাউকে একা পেলেই আপনার মন পরিপূর্ণ যৌনতায় অস্থির হয়ে ওঠে যা কখনই হওয়া উচিত ছিল না।

পর্ণগ্রাফি আমাদেরকে অমানবিক করে তোলে। যে অন্যকে শিকারি পশুর মতই ভাবতে থাকে কেবল। দয়া, মমতা, শ্রদ্ধা, মুগ্ধতা বিসর্জন দিয়ে আপনি অন্যকে কেবলি ভোগের এক খ- মাংসপি- ভাবতে শুরু করে দেন। পর্ণ আপনাকে অভাবিত পথে নিয়ে যায় যেখানে আপনি কিছুই পান না আদতে শুধুমাত্র এক গোলকধাঁধায় বিচরণ করতে করতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও মূল্যবান সময় ও কাজগুলো কখন যে হারিয়ে ফেলেন তা টেরও পান না।

চিন্তাশীল ব্যক্তিত্ব ম্যাট ফ্রাড বলেছেন, পর্ণ আমাদের অবাধ স্বাধীনতার ইঙ্গিত দিয়ে কার্যত আমাদের দাসত্বে পরিণতা করে। ঘনিষ্ট হবার সুযোগ সৃষ্টি করে এক ধরনের বিচ্ছিন্নত তৈরি করে। উত্তেজক হিসেবে এক আবহ তৈরির পর তা আমাদের একঘেয়েমিতে নিক্ষেপ করে। পর্ণ আমাদের প্রাপ্তবয়স্কদের বিনোদন হিসেবে হাজির হয়ে শেষ পর্যন্ত তা আমাদের বখাটে কিশোর কিশোরীতে পরিণত করে।

এধরনের পর্ণ আসক্তি কিভাবে যে কাউকে ধংসের পথে নিয়ে যায় তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। মনে রাখা জরুরি পর্ণ আসক্তি শুরু হয় সামান্য ইচ্ছা থেকে যা পাপের এমন সব পঙ্কিল পথে আপনাকে নিয়ে যেতে পারে যেখান থেকে আপনার ফিরে আসা সম্ভব নাও হতে পারে। এক ধরনের লোভ আপনার মনে বাসা বাঁধে যা সময়ে অসময়ে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে এবং আপনাকে পাপে পরিপূর্ণভাবে অনুগত এক দাসে পরিণত করে ফেলে। তাই প্রতিটি সিদ্ধান্ত নেয়া আপনার জীবনে জরুরি। প্রতারণা করে কাউকে নয় নিজেকে কেবল ঠকিয়ে কি লাভ।   খোদাকে ঠকানো যায় না। যে বীজ আপনি বপন করেন তা যে ফল উৎপন্ন করে সেটাই আপনাকে ভক্ষণ করতে হয়।

লেখক পরিচিতি : এমা জয় একজন লেখক যিনি মানুষের জীবন নিয়ে কৈফিয়তের জবাব দিতে ভালবাসেন। বাইবেলের শিক্ষা থেকে তিনি বিশ্বাস করেন প্রত্যেকের জীবন সুমহান ব্যবহারের জন্যে এবং তার জন্যে প্রত্যেককে জবাবদিহী করতে হবে। যৌনতাকে পাপের পর্যায়ে ও সামাজিকভাবে অনাচারের পর্যায়ে মানুষ কিভাবে নিয়ে যায় সে নিয়ে তার অসংখ্য লেখা রয়েছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *