উলঙ্গ নাচ আদালতে !

nintchdbpict000281109978-e1478721788380-532x550দক্ষিণ আফিকার প্রিটোরিয়ায় আদালতে লেসেগো লেগোদি নামে এক ব্যক্তিকে হাজির করা হল এবং তার বিরুদ্ধে অভিযোগ হচ্ছে কেনটাকি ফ্রাইড চিকেন রেঁস্তোরায় ভাংচুর করেছিল সে। এবার আদালতে এসে হঠাৎ জামাকাপড় খুলে দিগম্বর হয়ে বিচারপতির আসনে যেয়ে বসে পড়ল সে। সেই সঙ্গে এজলাসের ওপর উঠে উদ্বাহু নাচ। যতক্ষণ না পুলিশ এসে তাকে পুনরায় হাজতে না ভরল ততক্ষণ বেচারা লেসেগো তার নাচ অব্যাহত রাখে।দি সান

লেসেগো আদালতের কাগজপত্র এদিক ওদিক ছুড়ে মারে। বিচারবিভাগের ওপর ক্ষোভ থেকে সে এমন আচরণ করেছে কি না তা জানা যায়নি। এজলাসে অন্য যারা উপস্থিত ছিলেন তারা লেসেগোর এমন আচরণে হতবাক হয়ে যান। অনেকে দৌড়ে এজলাস থেকে বের হয়ে যান। কিন্তু লেসেগোকে এসময় নির্বিকার দেখা যাচ্ছিল। পুলিশ এসে তাকে টেনে নামাতে বেশ বেগ পায়।
এসময় লেসেগোর এসব কা- একজন ভিডিও করেন। একজন মহিলা বিষয়টি দেখে যীশুর নাম স্মরণ করেন। দেশটির বিচার বিভাগের এক কর্মকর্তা থুনজি মাঘা বলেন, লেসেগোর অপরাধের জন্যে তাকে আদালতে বিচারের জন্যে আনা হয়। কিন্তু আদালতে ঢুকেই সে তার কাপড় বিসর্জন দিতে শুরু করে। তবে পুলিশ তাকে নিবৃত্ত না করতে পেরে শেষ পর্যন্ত হাজতে ঢুকিয়েছে।

লেসেগোর এমন আচরণ মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পর অনেক প্রশ্নের অবতারণা হয়েছে। একজন তার এধরনের অপকর্মে মন্তব্য করেন, নাচের সময় তাকে মাঝে মাঝে তার পশ্চাতদেশ ঢাকতে দেখা গেছে। আরেকজন বলেন, তার মধ্যে উম্মাদের কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি, এটা সাজানো ঘটনা। তৃতীয় জন বলেন, অস্বস্তিকর আচরণ। তার আচরণে মনে হয়েছে আমাদের সরকার ও আদালত তামাশা মাত্র।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *